২০১৮তে দুটি দেড়শ' করলেন রোহিত! এই কৃতিত্ব আছে আরও ৫ ভারতীয় ব্য়াটসম্যানের, দেখুন

সোমবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ঝকঝকে ১৬২ রানের ইনিংস খেলেছেন রোহিত শর্মা। এর আগে গুয়াহাটিতে প্রথম একদিনের ম্যাচেও ১৫২ রান করেছিলেন তিনি। এই মুহূর্তে একদিনের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি দেড়শ' করার রেকর্ড ভারতের সহঅধিনায়কের ঝুলিতেই রয়েছে। সোমবারের ইনিংস নিয়ে তাঁর সাতটি দেড়শ' হয়ে গেল।

২০১৮তে দুটি দেড়শ করলেন রোহিত! এই কৃতিত্ব আছে আরও ৫ ভারতীয় ব্য়াটসম্যানের, দেখুন

এই বছর এখনও অবধি তাঁর দেড়শ'র সংখ্য়া দাঁড়াল দুটি। এই কীর্তি কিন্তু হাতেগোনা কয়েকজন ক্রিকেটারেরই আছে। ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাচ্ছে রোহিতের আগে মাত্র ৫ ভারতীয় ব্যাটসম্যান এই কাজ করে দেখাতে পেরেছেন।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (১৯৯৯)

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (১৯৯৯)

ভারতীয় ব্যাটস্যানদের সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ই প্রথম একই বছরের দুটি দেড়শ' রানের ইনিংস খেলেছিলেন। প্রথমটি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে টন্টনে। করেছিলেন ১৮৩। দ্রাবিড়ও শতরান করেছিলেনষ ভারত তুলেছিল ৩৭৩ রান। শ্রীলঙ্কা ২১৬ রানে অলআউট হয়। ভারত জেতে ১৫৭ রানে।

পরেরটি এসেছিল নভেম্বরে, গোয়ালিয়রে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। তিনি করেন ১৫৫* রান। ভারত ২৬১ রান তুলে ১৪ রানে জয় পায়।

গৌতম গম্ভীর (২০০৯)

গৌতম গম্ভীর (২০০৯)

গম্ভীরের দুটি দেড়শ' প্লাস ইনিংসই এসেছিল শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কা সফরে কলম্বোতে তিনি ঠিক ১৫০ রানই করেছিলেন। ভারত ৩৩২ রান তুলে ৬৭ রানে ম্যাচ জিতেছিল।

পরেরটি আসে ডিসেম্বরে। কলকাতায় সেই ম্যাচে তিনি করেন অপরাজিত ১৫০। শ্রীলঙ্কার ৩১৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ভারত জেতে ৭ উইকেটে। ওই ম্যাচে বিরাট কোহলিও শতরান করেছিলেন।

সচিন তেন্ডুলকর (২০০৯)

সচিন তেন্ডুলকর (২০০৯)

২০০৯ সালেই দ্বিতীয় ভারতীয় ব্য়াটসম্য়ান হিসেবে এক বছরে দুটি ১৫০ রানের ইনিং খেলেছিলেন সচিন। প্রথমটি আসে মার্চ মাসে ক্রাইস্টচার্চে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। ওই ম্য়াচে ১৬৩রান করেন। কিন্তু সেই ইনিংস খেলতে গিয়ে চোট পেয়ে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি। ওই ম্যাচে ভারত ৩৯২ রান তোলে! নিউজিল্যান্ড ভাল তাড়া করলেও ৩৩৪ রানের বেশি তুলতে পারেনি। ভারত জেতে ৫৮ রানে।

দ্বিতীয় দেড়শ রানে ইনিংস আসে নভেম্বরে বায়দরাবাদে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। ১৭৫ রান করেও অবশ্য সেই ম্যাচে ভারতকে জেতাতে পারেননি সচিন। অস্ট্রেলিয়ার ৩৫০ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ভারত থামে মাত্র ৩ রান পিছনে।

বীরেন্দ্র সেওয়াগ (২০১১)

বীরেন্দ্র সেওয়াগ (২০১১)

প্রথম ১৫০ রানের ইনিংসটি বীরু খেলেছিলেন ২০১১ সালের বিশ্বকাপে। ঢাকায় তাঁর ১৭৫ রানর সৌজন্যে ভারত তুলেছিল ৩৭০ রান। বিরাট কোহলিও শতরান করেছিলেন। ভারতের জয় এসেছিল ৮৭ রানে।

এরপর ডিসেম্বরে ইন্দোরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিনি শুধু দেড়শ' ন, করেছিলেন ২১৯ রান। ভারত তুলেছিল ৪১৮ রান! জবাবে ২৬৫ রানেই গুটিয়ে গিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বিরাট কোহলি (২০১৮)

বিরাট কোহলি (২০১৮)

তালিকার শেষ নাম বর্তমান ভারত অধিনায়কের এবং তিনিও রোহিতের মতো এই কীর্তি ছুঁয়েছেন ২০১৮ সালেই। প্রথম ১৫০ রানের ইনিংস তিনি খেলেছেন ফেব্রুয়ারিতে। জক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেপটাইউনে তিনি অপরাজিত ১৬০ রান করেছিলেন। দল করেছিল ৩০৩। ভারত জয় পায় ১২৪ রানে।

আর দ্বিতীয় দেড়শ'টি করেছেন তিনি চলতি সিরিজেই বিশাখাপত্তনম ম্যাচে। তাঁর ১৫৭ রানের দৌলতেই ভারত ৩২১ রান তুলেছিল। কিন্তু সাই হোপের অপরাজিত ১২৩ রানের জোরে সেই ম্য়াচ অমিমাংসিত ভাবে শেষ হয়েছে।

রোহিত শর্মা

রোহিত শর্মা

চলতি ওযেস্ট ইন্ডিজ সিরিজে প্রথম ম্যাচে গুয়াহাটিতে তিনি করেন অপরাজিত ১৫২। বিরাট কোহলিও শতরান করেন। ভারত ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩২৩ রানের লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছায় মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে।

দ্বিতীয় দেড়শটি রোহিত খেলেছেন মুম্বইতে। তাঁর ১৬২ ও আম্বাতি রাযডুর ১০০ রানের দোরে ভারত তুলেছিল ৩৭৭। জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শেষ হযে যায় ১৫৩ রানেই। ভারত জয় পায় বিশাল ২২৪ রানে। যা আগে ব্যাচট করে জেতার নিরিখে ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম জয়।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Story first published: Tuesday, October 30, 2018, 16:52 [IST]
    Other articles published on Oct 30, 2018
    POLLS

    পান মাইখেল-এর ব্রেকিং নিউজ অ্যালার্ট
    mykhel Bengali

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Mykhel sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Mykhel website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more