মুম্বইয়ের কাছে বারবার কেকেহার! ইডেনে জঘন্য ব্যাটিং-বোলিংয়ে ম্যাচ হারল কলকাতা

Posted By:

কাকে ছেড়ে কাকে ধরবেন! যেমন ব্যাটিং, তেমন বোলিং, তেমনই জঘন্য অধিনায়কত্ব। মুম্বই জুজু থেকে এই মরশুমেও বেরোতে পারল না কলকাতা নাইট রাইডার্স। প্রথম মরশুম থেকে শুরু করে এখনও সেই মুম্বই জুজু তাড়া করে বেড়াচ্ছে কেকেআরকে। প্রথমে জঘন্য বোলিং করে মুম্বইকে বোর্ডে ২১০ রান তুলতে দিলেন কেকেআর বোলাররা। তারপরে ব্যাটিংয়ে নেমে ষোলোকলা পূর্ণ করলেন ব্যাটসম্যানরা। নিট ফল, ১০২ রানের ম্যামথ ব্যবধানে ম্যাচ হেরে প্লে-অফে ওঠা এভারেস্টের চূড়ায় ওঠার মতোই দুর্গম করে ফেলল দীনেশ কার্তিকের ছেলেরা।

ইডেনে জঘন্য ব্যাটিং-বোলিংয়ে ম্যাচ হারল কলকাতা

এদিন টসে জিতে দীনেশ কার্তিক মুম্বইকে ব্যাট করতে পাঠান। প্রথম দশ ওভারে মুম্বই তুলেছিল মাত্র ৭২ রান। তখনও পর্যন্ত ম্যাচ কলকাতার নিয়ন্ত্রণে ছিল বলা যায়। তবে এগারোতম ওভার থেকে প্রথমে ধীরে ধীরে তারপরে এক্সপ্রেস গতিতে ম্যাচ বের করে নিয়ে গেল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

১৩ তম ওভারে কুলদীপ যাদবকে এক ওভারে পরপর চারটে ছক্কা হাঁকিয়ে ২৫ রানে নিলেন ইশান কিষাণ। সেখানেই ম্যাচ দূরে সরে যায়। তারপরে শেষ ওভারে পীযূষ চাওলা দিয়ে বসলেন ২২ রান। আর যায় কোথায়! মুম্বই তুলে ফেলল ৬ উইকেটে ২১০ রান।

মুম্বইয়ের হয়ে ২১ বলে ৬২ রান করেন ইশান কিষাণ। মাত্র ১৭ বলে অর্ধশতরান করেন তিনি। শেষদিকে বেন কাটিং ৯ বলে ২৪ করে কফিনে শেষ পেরেক পোঁতেন। এমনকী ২ বলে খেলে শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে যান ক্রুণাল পান্ডিয়াও।

ব্যাট করতে নেমে যেই কে সেই ছন্নছাড়া ব্যাটিং। ওভারের দ্বিতীয় বলে ৪ রানে আউট সুনীল নারিন। তারপরে রবীন উথাপ্পার সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে ২১ রানে রান আউট ক্রিস লিন। মোটামুটি তখনই ম্যাচ পকেটে পুরে নিয়েছিল মুম্বই।

তারপরে একে একে আয়ারাম আর গয়ারাম। নীতীশ রানা (২১), আন্দ্রে রাসেল (২), দীনেশ কার্তিক (৫), রিঙ্কু সিং (৫), পীযূষ চাওলারা (১১) একে একে এলেন আর গেলেন। ক্রিস লিন ও শেষদিকে কার্তিকের রান আউট যেন কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দিয়ে গেল। বিরক্তিকর ব্যাটিং করে অবশেষে ১৮.১ ওভারের মাথায় ১০৮ রানে অলআউট হল কেকেআর।

শেষ অবধি প্রিয় ইডেনে শেষ হাসি হাসলেন রোহিত শর্মাই। ইডেন তথা কলকাতা ফের ফর্মে ফিরিয়ে দিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে। এদিন জিতে ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্টে উঠে এল মুম্বই। অন্যদিকে কলকাতা পরপর ম্যাচ হেরে সেই ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্টে দাঁড়িয়ে রইল। এবং সবচেয়ে বড় কথা লিগ টেবলের চার নম্বর জায়গায় কলকাতাকে ডজ করে উঠে এল মুম্বই। কেকেআর নেমে গেল পাঁচ নম্বরে।

এদিন হারের ফলে কলকাতাকে শেষ তিনটি ম্যাচে সবকটিই জিততে হবে। তাহলে শেষ চারে ওঠার আশা থাকবে। একটিও ম্যাচ হারা মানে প্লে-অফ থেকে ছিটকে যেতে হবে।

ক্রিকেট ভালবাসেন? প্রমাণ দিন! খেলুন মাইখেল ফ্যান্টাসি ক্রিকেট

Story first published: Wednesday, May 9, 2018, 23:36 [IST]
Other articles published on May 9, 2018
POLLS

পান মাইখেল-এর ব্রেকিং নিউজ অ্যালার্ট
mykhel Bengali