প্রিয় সঞ্জয়দা-র নামে সমর্থকদের গো-ব্যাক ধ্বনি, সবুজমেরুন 'অল ইজ নট ওয়েল', দেখুন ভিডিও

Posted By: Debalina

অল ইজ নট ওয়েল - নতুন ২০১৮ আসার আগে এটাই এখন মোহন শিবিরে গুঞ্জন। অ্যারোজের বিরুদ্ধে ড্র করেই উসকে গেল বিতর্ক। যে বিদ্রোহের আগুন আর ছাই চাপাও রইল না। টানা তিনটি ম্যাচে ঘরের মাঠে ড্র মোহন বাগানের। সঞ্জয় সেন এই নিয়ে তৃতীয় মরশুম মোহনবাগানের কোচিং সামলাচ্ছেন। এই অবস্থায় দলের এত হতশ্রী রূপ দেখেনি সদস্য -সমর্থকরা।

প্রিয় সঞ্জয় দা-র নামে সমর্থকদের গো ব্যাক ধ্বনি, সবুজমেরুণ 'অল ইজ নট ওয়েল', দেখুন ভিডিও

[আরওপড়ুন:বিমানে বিপর্যয় ধাওয়ান পরিবারের, রেগে আগুন ভারতীয় ওপেনার ]

যুক্তি অনেক আছে। কিন্তু মোহনবাগান তো আর লিগ খেলার জন্য খেলে না। তারা দল গড়ে লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য। সঞ্জয় সেনের হাত ধরেই প্রথম আই লিগ খেতাব এসেছে বাগানে, এসেছে ফেডারেশন কাপ। কিন্তু গত মরশুমে রানার্স হয়েই থাকতে হয়েছে বাগানকে। তবে এবার বাগান যেভাবে খেলছে তাতে চ্যাম্পিয়নশিপ ফোকাস তা আদৌ বোঝা যাচ্ছে না। এই পরপর তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট খোয়ানো লম্বা দৌড়ে দলের পক্ষে আরও ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে। যদিও আই লিগের রেস লম্বা হওয়ার যুক্তি খাড়া করছেন মোহন কর্তারা সদস্য সমর্থকদের থামানোর জন্য , কিন্তু সেটা যে স্তোকবাক্য তা ভালোমতই জানেন সকলেই।

এদিকে দলের হতশ্রী পারফরম্যান্সের জন্য কোচ সরাসরি দায়ি করেছেন দলের ফুটবলারদের অপদার্থতাকেই। সনির অভাব ভুগিয়েছে মানছেন একরোখা সঞ্জয়। তাঁর মতে সনি শুধু গোল স্কোরার নন, প্লে মেকারও। তিনি মাঠে নেমে খেলাটাকে দিশা দেখাতে পারেন। পাশাপাশি কোনও রাখঢাক না করে সঞ্জয় এও বলেছেন, তাঁর সাইড লাইন থেকে নির্দেশ শুনেও বধির হয়ে থাকেন প্লেয়াররা। সঞ্জয় সেনের তোপে ড্রেসিং রুম যে শান্ত নেই তাও প্রমাণ হয়ে যাচ্ছে।

এদিকে কর্মকর্তারা এখনই কোচ অপসারণের কথা না বললেও জানিয়ে দিয়েছেন 'এই মুহূর্ত অবধি আস্থা আছে।' অভিজ্ঞ সঞ্জয় সেন দীর্ঘদিন ময়দান করছেন ,তিনি নিশ্চয় বোঝেন এই মুহূর্ত বলে কী ভাবে তাঁর ওপর চাপ বাড়ানোর খেলা চলছে। মাস কয়েক আগেই বাইপাস সার্জারি হয়েছে সঞ্জয় সেনের। তারপর তিনি ধীরে ধীরে মাঠে ফিরে নিজেকে মানিয়ে নিচ্ছেন। ধারাবাহিক ব্যর্থতায় তাঁর কী নিয়ন্ত্রণ হারাচ্ছে দলের ওপর এরকম গুঞ্জনও কিন্তু জোরালো হচ্ছে দলের ওপর।

সব মিলিয়ে পরিস্থিতি উত্তাল। কোচ এই মুহূর্তে পদ থেকে সরে যাওয়ার হয়তো সম্ভবনা নেই। কিন্তু ২০১৭ -র শেষ অশনি সংকেত দিয়ে গেল। তাছাড়া ঘরের মাঠে ম্যাচ আয়োজনের প্রথম ম্যাচেই আয়োজক হিসেবেও কিন্তু ধাক্কা খেল মোহনবাগান।

[আরও পড়ুন:নিউ ইয়ারের আগে ফের আটক বাগান, দশজনের অ্যারোজকেও টপকাতে পারল না সবুজ মেরুণ ]

For Quick Alerts
Subscribe Now
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Story first published: Friday, December 29, 2017, 18:49 [IST]
    Other articles published on Dec 29, 2017
    POLLS

    পান মাইখেল-এর ব্রেকিং নিউজ অ্যালার্ট
    mykhel Bengali

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Mykhel sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Mykhel website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more