মাতৃত্বেই শেষ নয়, টোকিও অলিম্পিকে ফিরব, আর যা-যা বললেন সানিয়া মির্জা

Written By: Amartya Lahiri

মাতৃত্ব যে খেলোয়ারদের জীবন শেষ করে দিতে পারে না তা আগেই প্রমাণ করে দিয়েছেন মেরি কম। এবার ভারতী. খেলার আরেক মহিলা আইকন সানিয়া মির্জাও জোর গলায় জানালেন মাতৃত্বই শেষ নয়। সন্তান জন্মের পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কোর্টে ফিরতে চান ভারতীয় টেনিসের রাণী। ডাবলস্-এ বিশ্বে প্রাক্তন এক নম্বর খেলোয়ার জানালেন নজর রয়েছে ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের দিকে।

টোকিও অলিম্পিকেই কোর্টে ফিরতে চান সানিয়া

গত মাসেই সানিয়া জানিয়েছেন তিনি সন্তীানসম্ভবা। ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভাসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে সানিয়া জনিয়েছন, "এটা (মাতৃত্বের জন্য) একেবারে সঠিক সময় ছিল। হাঁটুর আঘাতের জন্য আমি এমনিতেই খেলতা পারতাম না, আর সন্তানের ভাবনা সবসময়ই আমাদের মাথায় ছিল। আমাদের মনে হয়েছে এটা জীবনের এক নতুন পর্যায় শুরুর জন্য উপযুক্ত সময়।

সানিয়া 'জাম্পার্স নি' নামে হাঁটু এক সমস্যায় ভুগছেন। গত ছয় মাস তিনি টেনিসের বাইরে রয়েছেন। বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেও খেলতে পারেননি।
হাঁটুর অবস্থা নিয়ে সানিয়া জানান, 'আগের চেয়ে অনেকটাই ভাল আছে। অক্টোবর মাঝামাঝি থেকেই আমার খেলা বন্ধ আছে। প্রায় ছয় মাসের বেশি বিশ্রাম পেয়েছি। সবাইই বলেছিল বিশ্রামের কথা। তবে একেবারে সেরে গিয়েছে বলবো না, তবে আগের চেয়ে অনেক ভাল অবস্থা।'

চোট সারলেও তিনি তো এখন গর্ভবতী। ২০২০-র টোকিও অলিম্পিকে কি নামা সম্ভব হবে? সানিয়া বলেন, '২০২০ অলিম্পিক এখনও অনেক দূরে। কাল কি হবে কেউ জানে না। তবে এটুকু বলতে পারি নামা সম্ভব। কিন্তু দেখতে হবে জীবন সত্যিই সেখানে পৌঁছে দেয় কিনা। তবে এটা স্পষ্টভাবে বলতে চাই সন্তানের জন্মের পর যত তাড়াতাড়ি হয় খেলায় ফিরতে চাই।'

তার আগে এই মুহুর্তে তাঁর মনোযোগের কেন্দ্রে রয়েছে গর্ভের সন্তান। তার জন্য এজন বাড়া নিয়েও এতটুকু চিন্তিত নন তিনি। জানান, 'ওজন নিয়ে না ভেবে গর্ভাবস্থাকে সঠিকভাবে গ্রহন করতে হবে। গর্ভবস্থায় একটি সুস্থ শিশুর জন্ম দেওয়াটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আপনি একজন সেলিব্রিটি বা না হোন গর্ভবতী হলে ওজন বাড়বেই। সন্তানের জন্মের পর কাউ চাইলেই ওজন কমাতে পারে।'

সানিয়া নিশ্চিত যে মাতৃত্ব তার খেলায় প্রভাব ফেলবে না। তিনি বলেন, 'মাতৃত্ব কখনই কাউকে পিছিয়ে দিতে পারে না। বরং শক্তি জোগায়। মেয়েদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ মাতৃত্ব। আমি সবসময়ই এই সময়ের অপেক্ষা করেছি। জানতাম একসময়ে টেনিসকে পিছনের সারিতে যেতে হবে।'

তাঁর জীবনে টেনিসের পিছনের সারিতে যাওয়াটা যে সাময়িক পরক্ষণেই তা জানাতেও ভোলেননি সানিয়া। তিনি বলেন, 'আমি অবশ্যই ফিরবো। এটাই তো আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অবশ্যই, এই মুহুর্তে আমার বাচ্চা আমার জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু এর পরে, আমি খেলার ফিরে আসতে চাই। কারণ আমি আমার বাচ্চার জন্য একটা উদাহরণ রাখতে চাই, ওকে বার্তা দিতে চাই গর্ভবতী মানেই কারওর স্বপ্নের জলাঞ্জলি নয়। আমি এখনও যথেষ্ট তরুণ এবং কাজেও এখনও আমার ফিরে আসা, ভাল খেলা অসম্ভব নয়।'

সানিয়া অবশ্য নতুন ভারতীয় টেনিস খেলোয়ারদের নিয়েও আশাবাদী। তিনি আশা রাখেন তাঁর অনুপস্থিতিতে আর কেউ এসে তাঁর জায়গাটা নিক। তঁার মতে ঘরোয়া টেনিসে সেরকম প্রতিভাও আছে। প্রসঙ্গত এর আগে সেরেনা উইলিয়ামসকেও সন্তানের জন্মের পর খুব তাড়াতাড়িই কোর্টে ফিরতে দেখা গিয়েছে।

Story first published: Saturday, May 5, 2018, 22:22 [IST]
Other articles published on May 5, 2018
POLLS

পান মাইখেল-এর ব্রেকিং নিউজ অ্যালার্ট
mykhel Bengali